1. admin@songbadmoulvibazar.com : admin :
রবিবার, ২২ মে ২০২২, ১০:৪৪ অপরাহ্ন

ভাষা শহীদদের শ্রদ্ধা জানাতে মানুষের ঢল : উপেক্ষিত স্বাস্থ্যবিধি

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেট সময় : সোমবার, ২১ ফেব্রুয়ারি, ২০২২

আজ মহান শহীদ দিবস, অমর একুশে ফেব্রুয়ারি ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস। বাঙালি জাতির জীবনে এক গৌরবোজ্জ্বল দিন। এদিন মাতৃভাষার অধিকার প্রতিষ্ঠার জন্য জীবন উৎসর্গ করার অভূতপূর্ব দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছিলেন বাংলা মায়ের অকুতোভয় সন্তানেরা। তাই যথাযোগ্য মর্যাদায় জাতি আজ স্মরণ করছে ভাষাশহীদদের। সারা দেশেরন্যায় মৌলভীবাজারেও শ্রদ্ধা আর ভালবাসায় স্বরণ করা হয় ভাষা শহীদদের। ভাষা শহীদদের শ্রদ্ধা জানাতে ফুল হাতে হাজারো মানুষের ঢল নামে কৃন্দ্রীয় শহীদ মিনারে। রোববার (২০ ফেব্রুয়ারি) দিনগত রাত পৌনে ১২টার মধ্যে গুড়ী গুড়ী বৃষ্টি উপেক্ষা করে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার চত্বর কানায় কানায় পূর্ণ হয়ে যায়। ঘড়ির কাটায় যখন ১২টা ১মিনিট তখন থেকেই শুরু হয় মৌলভীবাজারে ফুলেল শ্রদ্ধা আর ভালোবাসায় শহীদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন।

একুশের প্রথম প্রহরে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে রাত ১২টা ১ মিনিটে প্রথমে পুষ্পমাল্য দিয়ে ভাষা শহীদদের শ্রদ্ধা নিবেদন করেন জেলা প্রশাসক মীর নাহীদ আহসান, এরপড় একে একে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন মৌলভীবাজার তিন আসনের সংসদ সদস্য নেছার আহমদ, মৌলভীবাজার-হবিগঞ্জ সংরক্ষিত আসনরে সংসদ সদস্য সৈয়দা জহুরা আলাউদ্দিন, জেলা পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জাকারিয়া, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মিসবাহুর রহমান, পৌর মেয়র ফজলুর রহমান, জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, জেলা আওয়ামীলীগ, সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান কামাল হোসেন, মৌলভীবাজার প্রেসক্লাব, ইলেট্রনিক মিডিয়া জার্নালিস্ট এসোসিয়েশন (ইমজা), সদর উপজেলা আওয়ামীলীগ, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবকলীগ,কৃষকলীগ,ছাত্রলীগ ও সহযোগি সংগঠনসমূহ, জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি, যুবদল, ছাত্রদল, জেলা তথ্য অফিস, জেলা শিশু একাডেমি, জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতর, ফায়ার সার্ভিস, আনসার ভিডিপি, বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক,সাংস্কৃতিক সংগঠন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, ও পেশাজীবি সংগঠন সহ সরকারি বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারী এবং সর্বস্তরের হাজারো মানুষ।

এ সময় ‘আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙানো একুশে ফেব্রুয়ারি আমি কি ভুলিতে পারি’ গানের সুর বাজতে থাকে, আর ফুলে ফুলে ভরে উঠে বাঙালির শোক আর অহংকারের শহীদ মিনার। সব বয়স আর শ্রেণি-পেশার মানুষের পদচারণায় মুখরিত হয়ে ওঠে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার এলাকা।

একুশের শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদনকে কেন্দ্র করে মৌলভীবাজার কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার ও আশপাশের এলাকায় নিরাপত্তা ব্যবস্থা গড়ে তুলেন আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা। বর্তমান কোভিড-১৯ ভাইরাসের জন্য সতর্কতা অবলম্বন করে দিবসটি উদযাপনের কথা থাকলেও, উপেক্ষিত হয় স্বাস্থ্যবিধি। কেন্দ্রীয় শহিদ মিনারে সংগঠন ও প্রতিষ্ঠান পর্যায়ে সর্বোচ্চ পাঁচজন এবং ব্যক্তি পর্যায়ে দুইজন একসঙ্গে শহিদ বেদীতে পুষ্পস্তক অর্পণ করতে ও সম্পূর্ণ স্বাস্থ্যবিধি মেনে শহীদ মিনারে আসার আহ্বান জানিয়েছিল কর্তৃপক্ষ। কিন্তু একুশের প্রথম প্রহরে উপস্থিত হয়ে দেখা গেল, এর উল্টো চিএ, এসব দূরেই থাক। ন্যূনতম স্বাস্থ্যবিধিও মানা হয়নি সেখানে।

শুরুতে বিধিনিষেধ অনুযায়ী সবার মুখে মাস্ক নিশ্চিত করা হলেও, প্রশাসনের সামনের সারির কর্মকর্তাদের শ্রদ্ধা নিবেদনের পরই ভেঙে যায় শৃঙ্খলা বলয়। বিভিন্ন সংগঠন ও প্রতিষ্ঠান ২০-৩০ জন থেকে শুরু করে অর্ধশতাধিক লোক নিয়েই কেন্দ্রীয় শহিদ মিনারের বেদীতে উপস্থিত হচ্ছে।  অনেকের মুখে নেই মাস্কও। কারো কারো মাস্ক আটকে গেছে থুতনিতেই। মাস্কত দূরের কথা ,দূরত্ব না মেনে গাদাগাদি করে পাশাপাশি দাড়িয়েই চলছিল ফটোসেশন।

এদিকে শহিদ মিনারে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের পাশাপাশি ছিল স্বেচ্ছাসেবক সংগঠন। কিন্তু কেন কেন্দ্রীয় শহিদ মিনারে স্বাস্থ্যবিধি মানা হচ্ছে না, তা দেখার যেন কেউ ছিলোনা।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

© স্বত্ব সংরক্ষিত © ২০২১ সংবাদ মৌলভীবাজার
Theme Customized BY Songbad Moulvibazar
error: Content is protected !!