1. songbadmoulvibazar@gmail.com : admin :
শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪, ০৯:৪১ পূর্বাহ্ন

ভোক্তার সঙ্গে প্রতারণা : জরিমানা দিলো স্বাদসহ ৫ প্রতিষ্ঠান

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেট সময় : রবিবার, ১০ এপ্রিল, ২০২২

পবিত্র রমজান মাসে নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্য ও অতিচাহিদা সম্পন্ন ইফতার সামগ্রীর দাম অস্বাভাবিকভাবে বাড়িয়েদেয় বিভিন্ন ব্যবসা প্রতিষ্ঠান।

রমজানে পণ্য কিনে যেন কোন ক্রেতা প্রতারণার শিকার না হন এমনকি নিজের অজান্তেও ভোক্তা যেন স্বাস্থ্যঝুঁকির মুখে না পড়েন এবং ন্যায্য দামে খাদ্য পণ্য ক্রয় করতে পারেন তা নিশ্চিতে এবং লাগামহীন বাজার নিয়ন্ত্রণে রবিবার (১০ এপ্রিল) দুপুরে মৌলভীবাজার শহরের কোর্ট মার্কেট, চৌমুহনা, কোর্ট রোড, টিসি মার্কেটসহ বিভিন্ন জায়গায় নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্য সামগ্রীর পাইকারী ও খুচরা ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠান, ফলের প্রতিষ্টান ও ইফতারির খাদ্য তৈরি প্রতিষ্ঠানে অভিযান চালায় জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর।

এই অভিযানে ক্রেতা-বিক্রেতাকে যেমন সচেতন করা হয়, তেমনি ক্রেতার স্বার্থ বিরোধী অপরাধ প্রমাণিত হওযায় জরিমানাও আদায় করা হয় প্রতারক প্রতিষ্ঠানগুলোর কাছ থেকে।

রমজানে প্রায সব ঘরেই ইফতারে প্রধান খাবার থাকে খেজুর। সেই খেজুর বছরের অন্যান্য সময় বাজারে কমদামে পাওয়া গেলেও রমজান ঘিরে খেজুরের বাজারেও হানা দেয় অসাধুরা। পর্যাপ্ত মজুদের পরও রমজানে বেশি দামেই খেজুর কিনতে হচ্ছে এমন অভিযোগ ছিলো ক্রেতাদের। ভোক্তার বাজার অভিযানেও দেখা মিলে এমন চিএ।

সপ্তাহের ব্যবধানে দ্বিগুণ বেড়েছে খেজুরের দাম। ১ হাজার টাকার খেজুর বিক্রি হচ্ছে প্রতি কেজি ১৫শত টাকা। অথচ এত দামে বিক্রি করা এই পণ্য ক্রয় করার কোন মূল ভাউচারই দেখাতে পারেনি শহরের নামীদামী প্রতিষ্ঠান স্বাদ এন্ড কোং। এ অভিযানে বেরিয়ে আসে স্বাদের আরেক প্রতারণার চিএ। ক্রেতা সেজে আলুর চপের দাম জানতে চাইলে বলা হয় ২০ টাকা, পরে ভোক্তার লোক জানতে পেরে দাম কমে হয় ১৫ টাকা। ভোক্তার কর্মকর্তা বলেন বাজারে প্রতি কেজি আলুই বিক্রি হচ্ছে ২০ থেকে ২২ টাকা দরে, সেখানে প্রতি পিস আলুর চপ বিক্রি ২০ টাকা ন্যায্যতা নয়।

অভিযানে পণ্যের মূল্য তালিকা প্রদর্শন না করা, নির্ধারিত মূল্যের চেয়ে অতিরিক্ত দামে খেজুরসহ অন্যান্য খাদ্য পণ্য বিক্রয় করা ও অস্বাস্থ্যকর উপায়ে খাদ্য পণ্য সংরক্ষণ এবং বিক্রি করে ভোক্তার অধিকার লঙ্ঘন করার অপরাধে ২০ হাজার টাকা জরিমানা দিয়েছে কোর্ট রোডে অবস্থিত স্বাদ এন্ড কোং।

এছাড়াও অতিরিক্ত দামে মৌসুমী ফল তরমুজ ও অন্যান্য ফল বিক্রয় করে ভোক্তার অধিকার লঙ্ঘনের অপরাধে কোর্ট মার্কেটে অবস্থিত জাহেদ মিয়ার ফল ভান্ডার ১ হাজার টাকা, চৌমুহনায় অবস্থিত মক্কা ফল ভান্ডার ৫ শত টাকা, মায়ের দোয়া ফল ভান্ডার ১৫ হাজার টাকা ও টিসি মার্কেটে অবস্থিত সাগর ষ্টোরের ব্যবসায়ী ১ হাজার টাকা জরিমানা দিয়েছেন।

ভোক্তা অধিকার আইনের বিভিন্ন ধারায় এই জরিমানা আদায় করেছে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সার্বিক তত্ত্বাবধানে থাকা জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর। ভোক্তার মৌলভীবাজার জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক মো: আল-আমিন এর নেতৃত্বে চালানো এ অভিযানে সহযোগিতা করে জেলা গোয়েন্দা পুলিশ ফোর্স। অভিযানে মোট ৫টি প্রতিষ্ঠানকে সর্বমোট ৩৭ হাজার ৫ শত টাকা জরিমানা ও তা আদায় করা হয়।

 

Facebook Comments Box
এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

© স্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৮ সংবাদ মৌলভীবাজার
Theme Customized BY Songbad Moulvibazar
error: Content is protected !!