1. songbadmoulvibazar@gmail.com : admin :
সোমবার, ০৪ মার্চ ২০২৪, ০২:৩৩ অপরাহ্ন

ডলিকে শ্বাসরুদ্ধ করে হত্যা করেছিলো তাঁর স্বামী: পুলিশ সুপার

সংবাদ মৌলভীবাজার ডেস্ক
  • আপডেট সময় : বুধবার, ১৯ মে, ২০২১

মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গল উপজেলার সিন্দুরখান ইউনিয়নের উদনার পাড় ব্রীজের নিচ থেকে গতকাল (১৮ মে) সাদা রংয়ের প্লাস্টিকের বস্তার ভিতর পা বাধা অবস্থায় অজ্ঞাতনামা এক মহিলার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। প্রাথমিকভাবে লাশের কোন পরিচয় না পাওয়াও তাৎক্ষণিক মামলা রুজুকরে তদন্ত শুরু করেন পুলিশ কর্মকর্তারা।

তদন্তকারী পুলিশ পরিদর্শক(তদন্ত) মোঃ হুমায়ুন কবির লাশের সেই প্লাস্টিকের বস্তায় লিখা মোঃ অনিক শ্রীমঙ্গল এর সূত্র ধরে সাইফুর রহমান মার্কেটের পুরাতন কাপড় ব্যবসায়ী অনিক এবং তার ভাই জুয়েল মিয়াকে প্রাথমিকভাবে সনাক্ত করেন। তাদের কাছ থেকে জানা যায় এই বস্তাটি সুদের ব্যবসায়ী মসুদ মিয়া চা পাতা ভরার কথা বলে তাদের কাছ থেকে নিয়ে যান। ঐদিন রাতেই পুলিশ সেই মসুদ মিয়াকে গ্রেফতার করে। গ্রেফতারকৃত মসুদ মিয়া জিজ্ঞাসাবাদে এই হত্যাকান্ডের দায় স্বীকার করে বলে মৃত মহিলাটি তার ৪র্থ স্ত্রী ডলি আক্তার। সে জানায় যায় গত ১৭ মে তার স্ত্রী ডলি আক্তারের সাথে তাঁর ঝগড়া বিবাদ হয়। ঐ দিন রাতেই অনুমানিক সাড়ে ৩টার দিকে সে তাঁর স্ত্রী ডলি আক্তার (২৮) কে শ্বাসরুদ্ধ করে হত্যা করে।
বুধবার (১৯ মে) বিকেলে মৌলভীবাজার পুলিশ সুপার কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে সংবাদ সম্মেলন করে এই তথ্য জানান পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জাকারিয়া। তিনি জানান এ ঘটনায় মূল আসামী ঘাতক স্বামী মসুদ মিয়া। প্রায় ৭-৮ মাস আগে ঝিনাইদহ সদর থানায় বধনপুর গ্রামের মৃত ফেলু মন্ডলের মেয়ে ডলি আক্তারের সাথে শ্রীমঙ্গল নতুনবাজারে পরিচয় সুবাধে বিবাহ হয় মসুদের, সে ৪ থেকে ৫ টি বিবাহ করেছে, ডলি তার ৪র্থ স্ত্রী। তাকে শ্বাসরুদ্ধ করে হত্যার পড় বস্তাবন্দি করে একটি সিএনজি করে লাশটি উদনাছড়া ব্রিজের উপর থেকে সে নিচে ফেলে দেয়।
পুলিশ সুপার বলেন, ঘাতক স্বামী মসুদের সাথে তার কোনো স্ত্রীর দাম্পত্য জীবন ভাল ছিল না। বিভিন্ন মেয়েদের সাথে তার পরকিয়ার সম্পর্ক ছিলো, তার ঘরে বিভিন্ন ধরনের যৌন উত্তেজক ট্যাবলেট পাওয়া যায়। প্রাথমিকভাবে পুলিশের পক্ষে এই লাশের পরিচয় শনাক্ত করা সম্ভব না হলেও পরবর্তীতে সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার আশরাফুজ্জামান, শ্রীমঙ্গল সার্কেল সহ শ্রীমঙ্গল থানা পুলিশের কঠোর প্রচেষ্টা ও অভিযানে এই হত্যাকান্ডের সাথে জড়িত প্রধান আসামীকে দ্রুত সময়ের মধ্যে শ্রীমঙ্গল থানাধীন রামনগর সাকিনস্থ তার নিজ বাড়ি থেকে গ্রেফতার করা হয়। বিকেলেই তাকে আদালতে হাজির করা হবে।
সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন ও অপরাধ) হাসান মোহাম্মাদ নাছের রিকাবদার, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর) এ,বি,এম, মোজাহিদুল ইসলাম (পিপিএম), শ্রীমঙ্গল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ আব্দুছ ছালেক।
উল্লেখ্য, মঙ্গলবার ১৮ মে সকাল সাড়ে ৯টার দিকে উদনার পাড় ব্রীজের নিচে একটি মুখ বাঁধা সাদা রংয়ের বস্তা দেখে স্থানীয়রা পুলিশকে খবর দেয়। খবর পেয়ে পুলিশ সকাল ১১টার দিকে ঘটনাস্থলে পৌছে বস্তাটি উদ্ধার করে মুখ খুললে পা বাধা অবস্থায় অজ্ঞাতনামা এক মহিলার লাশ পায়।
Facebook Comments Box
এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

© স্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৮ সংবাদ মৌলভীবাজার
Theme Customized BY Songbad Moulvibazar
error: Content is protected !!